মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

মুক্তিযোদ্ধা ভাতা

মুক্তিযোদ্ধা ভাতা কার্যক্রম

সরকার দেশের সকল উপজেলা, পৌরসভা এবং সিটি কর্পোরেশনের আওতাভুক্ত অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ১লা জুলাই, ২০০০ তারিখ হতে আজীবন মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রদান করার সিদ্ধান্ত নেয়। শুরুতে এই ভাতার পরিমান ছিল ৩০০ শত টাকা। পরবর্তীতে এই ভাতার পরিমান বৃদ্ধি পেতে পেতে বর্তমানে দাড়িয়েছে ৭৫০ টাকায়। বর্তমানে ফকিরহাট উপজেলায় ৭৩ জন মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পাচ্ছেন।
 
বাস্তবায়ন কর্তৃপক্ষ :
•    মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয় অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ভাতা প্রদান কর্মসূচী বাস্তবায়ন করবে। মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাঠ পর্যায়ে কোন সংগঠন বা জনবল না থাকায় এ বাস্তবায়ন কার্যক্রম সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়াধীন সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে সম্পাদিত হবে।
•    বয়স্ক ভাতা এবং বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তা দুঃস্থ মহিলাদের ভাতা প্রদান সংক্রান্ত বিষয়ে মাননীয় অর্থ মন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি মন্ত্রীসভা কমিটি কাজ করছে। এ কমিটি অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ভাতা বিতরণ কর্মসূচী সার্বিক তত্ত্বাবধান, মূল্যায়ন এবং এ সংক্রান্ত বাজেট নির্ধারণের দ্বায়িত্ব পালন করবে।
•    মাঠ পর্যায়ে নিয়োজিত সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপজেলা পর্যায়ে ভাতা বিতরণ সংক্রান্ত গঠিত কমিটি এবং সিটি কর্পোরেশনের এলাকাভুক্ত থানাসমূহে ভাতা বিতরণ সংক্রান্ত কমিটির সাথে পরামর্শ করে অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ভাতা প্রদান কর্মসূচী বাস্তবায়ন করবে।

বাস্তবায়নের কর্মকৌশল :
•    সংশ্লিষ্ট এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা ব্যক্তিদের সম্বন্ধে তথ্য সংগ্রহ এবং তার মাধ্যমে প্রকৃত সংখ্যা নিরুপন।
•    মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে অসচ্ছল, অসহায় এবং দুর্বল অংশের অগ্রাধিকার তালিকা প্রণয়ন।

মুক্তিযোদ্ধা/অসহায় মুক্তিযোদ্ধা চিহ্নিতকরণের মানদণ্ড :
মুক্তিযোদ্ধা :

•    মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত মাননীয় প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক স্বাক্ষরিত সাময়িক সনদপত্রধারী। অথবা
•    এ পর্যন্ত জাতীয়ভাবে প্রস্তুতকৃত চারটি তালিকার মধ্যে যাদের নাম কমপক্ষে দুইটি তালিকায় অর্ন্তভূক্ত আছে; অথবা
•    সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ এবং বাংলাদেশ রাইফেলস হতে প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় যাদের নাম অর্ন্তভূক্ত আছে; অথবা
•    পরবর্তী যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে যাদের নাম গেজেট নোটিফিকেশনের মাধ্যমে চুড়ান্তভাবে প্রকাশ করা হবে।

অসহায় মুক্তিযোদ্ধা :
•    অসহায় মুক্তিযোদ্ধা যার বার্ষিক আয় মোটামুটি ১২,০০০/- টাকার উর্দ্ধে নয়।
•    কর্মক্ষম নন বা আংশিক কর্মক্ষম/ভূমিহীন/কর্মহীন/সহায় সম্বলহীন মুক্তিযোদ্ধা।

অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ভাতা পাওয়ার ক্ষেত্রে যারা অগ্রাধিকার পাবেন :
•    সর্বোচ্চ বয়স্ক।
•    যদি তিনি বয়স্ক ভাতা/বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তা দুঃস্থ মহিলা ভাতাভোগী হন, তবে তিনি অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পেলে ভাতা প্রাপ্তির মাস হতে আর বয়স্ক ভাতা বা বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তা দুঃস্থ মহিলা ভাতা পাবেন না।
•    যিনি ভূমিহীন অর্থাত্ জমি ও বাস্তুভিটাহীন।
•    বসত বাড়ী আছে কিন্তু আবাদি জমি নেই।
•    যার পরিবারে উপার্জনক্ষম কোন ব্যক্তি নেই।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি :
যোগ্যতা :
•    মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা প্রাপকদের বর্তমান তালিকা সংশ্লিষ্ট থাকা কমিটি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে জেলা কমিটি) কর্তৃক পর্যালোচনা করে যারা সচ্ছল বা অমুক্তিযোদ্ধা তাদের নাম তালিকা হতে বাদ যাবে।
•    সমসংখ্যক যোগ্য প্রার্থী মনোনয়ন করে উভয় ক্ষেত্রে জেলা কমিটির চুড়ান্ত অনুমোদনক্রমে তা উপজেলা কমিটিতে অর্ন্তভুক্ত করতে হবে।
•    জেলা, উপজেলা, পৌরসভা এবং সিটি কর্পোরেশনের এলাকাভুক্ত থানাসমূহের ভাতা বিতরণের জন্য কমিটি অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রদানের জন্য ব্যাপক প্রচারের  মাধ্যমে দরখাস্ত আহবান করবেন। এ ব্যাপারে বর্তমান মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ড কাউন্সিল/পৌরসভা চেয়ারম্যান/মেম্বার এবং স্থানীয় বিদ্যালয়/মাদ্রাসাসমূহের প্রধানসহ অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিগণকে বিজ্ঞপ্তি আকারে জানাতে হবে।
•    অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা গ্রহণে আগ্রহী প্রার্থীগণ নির্ধারিত ছকে সংশ্লিষ্ট উপজেলার সমাজসেবা অফিসার ও উপজেলা কমিটির সদস্য-সচিব বরাবরে আবেদনপত্র পেশ করবেন। (ফরম-১)
•    অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রদানের জন্য প্রার্থী বাছাইয়ের লক্ষ্যে উপজেলা পর্যায়ে একটি ও জেলা পর্যায়ে একটি কমিটি থাকবে।

ভাতা প্রাপ্তির অযোগ্যতা :
•    যিনি সরকারী বা অসরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মজীবী।
•    গ্র্যচুইটি বা পেনশনের সুবিধাসহ যার বার্ষিক আয় ১২,০০০/- টাকার উর্দ্ধে।
•    যিনি মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাষ্ট/বেসরকারী সংস্থা হতে নিয়মিত আর্থিক অনুদান পেয়ে থাকেন।

ভাতা বিতরণ কমিটি :
উপজেলা কমিটি:
•    উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ............................................................................ সভাপতি
•    পৌরসভার চেয়ারম্যান/প্রতিনিধি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) .................................................... সদস্য
•    উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এর ২ (দুই) জন প্রতিনিধি...............................................  সদস্য
•    উপজেলা হিসাব রক্ষক কর্মকর্তা ....................................................................... সদস্য
•    ব্যাংক ম্যানেজার (সোনালী/জনতা/অগ্রণী/রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক/বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, সংশ্লিষ্ট উপজেলা সদর) ........ সদস্য
•    সংশ্লিষ্ট উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ ................................................... সদস্য
•    গণ্যমান্য ব্যক্তি ২ জন (১ জন পুরুষ+১ জন মহিলা) .................................................. সদস্য
        (সংশ্লিষ্ট জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত মাননীয় মন্ত্রী/চীফ হুইপ/প্রতিমন্ত্রী/হুইপ/উপ-মন্ত্রী কর্তৃক মনোনীত)
•    উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা ........................................................................... সদস্য

উপজেলা পর্যায়ে ভাতা বিতরণ সংক্রান্ত কমিটির কর্মপরিধি :
•    উপজেলা এলাকার অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা প্রদানের জন্য নীতিমালা আলোকে প্রাথমিকভাবে প্রার্থী বাছাই করে তালিকা প্রণয়ণ করবে।
•    অনুমোদনের জন্য প্রণীত তালিকা জেলা কমিটির নিকট প্রেরণ করবে।
•    প্রাথমিকভাবে প্রার্থী বাছাই সংক্রান্ত যাবতীয় অভিযোগ নিষ্পত্তি করবে। তবে আপীলের প্রশ্ন দেখা দিলে তা নিষ্পত্তির জন্য জেলা কমিটিতে প্রেরণ করবে এবং জেলা কমিটির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে।

ভাতা পরিশোধের পদ্ধতি :
•    কোন উপজেলায় নির্ধারিত সংখ্যক যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট জেলার অন্য কোন উপজেলার যোগ্য প্রার্থী দ্বারা নির্ধারিত সংখ্যা পূরণ করা যাবে। এ বিষয়ে জেলা কমিটি সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।
•    উপজেলার ক্ষেত্রে উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়, ভাতা প্রদান সংক্রান্ত কমিটি কর্তৃক চূড়ান্তভাবে অনুমোদিত ভাতা প্রাপকদের তালিকা এবং প্রয়োজনীয় উপকরণ (ভাতা পরিশোধ বহি ও ছবি) ও অন্যান্য তথ্যাদি উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ করবে।
•    উপজেলার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কমিটি কর্তৃক চূড়ান্তভাবে প্রণীত ভাতা প্রাপকের তালিকা সংরক্ষণ করবে।
•    অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রদান বাবদ বাজেটে বরাদ্দকৃত অর্থ সমান দু'কিস্তিতে অর্থ মন্ত্রণালয় অবমুক্ত করবে। অতঃপর সমাজসেবা অধিদপ্তর ঐ অর্থ সোনালী/জনতা/ অগ্রণী/রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক/কৃষি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে ন্যাস্ত করবে।
•    উপজেলায় অবস্থিত সোনালী/জনতা/অগ্রণী/রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক/বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের শাখার মাধ্যমে এ ভাতা পরিশোধ করা হবে।
•    পেনশনারদের পিপিও এর ন্যায় অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পরিশোধ বই (পাশবই ফরম ২+৩) নামে একটি বই থাকবে। এ বইয়ে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বর/গেজেটেড কর্মকর্তা/উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্তৃক ভাতা প্রাপকের সত্যায়িত ছবি (সত্যায়নকারীর সীলসহ) থাকবে। প্রতিটি বইয়ে পৃথক নম্বর থাকবে। প্রার্থী তালিকা চূড়ান্তভাবে অনুমোদিত হওয়ার পর উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা ভাতা প্রাপকের নামে একটি বই ইস্যু করবে। এ বই ইস্যু করার পর জেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা/উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট ভাতা গ্রহীতার ছবিসহ ডি হাফ (ফরম-৩)  প্রেরণ করবে। অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা গ্রহীতাদের মধ্যে কেহ পাশ বই হারিয়ে বা নষ্ট করে ফেললে সংশ্লিষ্ট উপজেলা কমিটি আবেদনপত্রের ভিত্তিতে বিষয়টি চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করবে। বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে কমিটি পুনরায় একটি ডুপ্লিকেট পাশ বই ইস্যু করার জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা/উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে সুপারিশ করবে এবং জেলা কমিটিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করবে।
•    উপজেলার ক্ষেত্রে উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা এবং উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রাপকদের নাম, ছবি ও নমুনা স্বাক্ষরসমেত একটি রেজিষ্টার সংরক্ষণ করবে। যদি শারীরিক অক্ষমতাজনিত কারণে কিংবা পর্দানশীল হবার কারণে কোন ভাতাভোগী ভাতা গ্রহণের জন্য স্বশরীরে উপস্থিত হতে না পারেন, তাহলে তিনি অন্য কোন ব্যক্তিকে তাঁর পক্ষে গ্রহণের জন্য মনোনীত করতে পারবেন। মনোনীত ব্যক্তির পরিচয়পত্রে ওয়ার্ড মেম্বর/গেজেটেড কর্মকর্তা/উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত ছবি (সত্যায়নকারীর সীলসহ) থাকবে। মনোনীত ব্যক্তি ভাতা গ্রহণ করার সময় প্রতিবার সংশ্লিষ্ট ভাতাভোগী জীবিত আছেন মর্মে স্থানীয় প্রতিনিধি ওয়ার্ড মেম্বার চেয়ারম্যান এর সনদপত্র পেশ করবে।
•    মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রতি মাসে প্রদান করা হবে। তবে কেহ ইচ্ছা করলে একত্রে একাধিক মাসের বকেয়া ভাতা উত্তোলন করতে পারবেন।
•    অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা গ্রহীতা মৃত্যুবরণ করলে সংশ্লিষ্ট উপজেলা এলাকার কমিটির সভাপতি/সদস্য-সচিব অবিলম্বে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসককে জ্ঞাত করে উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে জ্ঞাত করবে। মৃত ব্যক্তির মৃত্যুজনিত একটি সার্টিফিকেট সংশ্লিষ্ট উপজেলা কমিটির সভাপতি/সদস্য-সচিব ইস্যু করবে। (ফরম-৪) সিটি কর্পোরেশনের এলাকাভুক্ত থানাসমূহের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্পোরেশনের এলাকাভুক্ত থানাসমূহে ভাতা বিতরণ সংক্রান্ত কমিটির সভাপতি/সদস্য-সচিব অবিলম্বে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসককে জ্ঞাত করে জেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে অবহিত করবে। মৃত ব্যক্তির মুত্যুজনিত একটি সার্টিফিকেট সংশ্লিষ্ট কমিটির সভাপতি/সদস্য-সচিব ইস্যু করবে (ফরম-৪)।

অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা মঞ্জুরীর আবেদন পত্র
প্রথম অংশ

(আবেদনকারীর নিজে পূরণ ও স্বাক্ষর করিবেন অথবা কাহারো দ্বারা পূরণ করিয়া নিজে স্বাক্ষর ও টিপসই দিবেন)

 বরাবর,
উপরিচালক
জেলা সমাজসেবা কার্যালয় ও
উপজেলা সমাজসেবা অফিসার ও
সদস্য সচিব, উপজেলা ভাতা বিতরন সংক্রান্ত কমিটি
উপজেলা -----------------
জেলা ----------------------
       ছবি

বিষয়ঃ অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা মঞ্জুরীর জন্য আবেদন।
 
মহোদয়,
বিনীত নিবেদন এই যে, আমার বর্তমান বয়স .................... বত্সর। আমি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ঘোষিত মাসিক ................... টাকা হারে অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রাপ্তির জন্য আবেদন জানাইতেছি এবং এই সুত্রে নিম্নলিখিত তথ্যাদি আপনার সহানুভূতিশীল বিবেচনার জন্য পেশ করিতেছি।
(ক) নাম :
(খ) ঠিকানা :
বর্তমান: ................................ . ..   স্থায়ী:     ................................
           .................................                .................................
           ..................................               ................................

(গ) আবেদনকারীর বাত্‍সরিক গড় আয় :
(এর সাপেক্ষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের/পৌরসভার চেয়ারম্যান/ওয়ার্ড সদস্য/কমিশনারের সার্টিফিকেট সংযোজন করিতে হবে)
(ঘ) স্বাস্থ্যগত অবস্থা :
(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে টিক চিহ্ন দিন) ১) দুর্বল ২) আংশিক কর্মক্ষম  ৩) কর্মক্ষম নহে
(ঙ) আর্থ সামাজিক অবস্থা : (ক) (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে টিক চিহ্ন দিন)  ১) ভূমিহীন ২) বাস্তুভিটাহীন  ৩) পরিবারে উপার্জনক্ষম ব্যক্তিহীন  ৪) কর্মহীন
                                  (খ) ১) বয়স্ক ভাতাভোগী ২) বিধবা/স্বামী পরিত্যাক্তা ভাতা ভোগ ৩) মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ট্রাস্টের ভাতা ভোগী ৪) বেসরকারী সংস্থার ভাতা ভোগী
(চ) জন্ম তারিখ/আনুমানিক জন্ম তারিখ :
(ছ) সনাক্তকরণ চিহ্ন :
(জ) মুক্তিযোদ্ধার সমর্থনে সনদপত্রের অনুলিপি সংযুক্ত করিতে হইবে:
(ঝ) পৌরসভা/ইউনিয়ন/সিটিকর্পোরেশনের বাসিন্দা হিসাবে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/ওয়ার্ড সদস্য/কমিশনারের নিকট থেকে স্থায়ী বাসিন্দার প্রত্যয়নপত্র সংযুক্ত করিতে হবে:
(ঞ) উপজেলা/মেট্রোপলিটন থানায় অবস্থিত: সোনালী/জনতা/অগ্রণী/রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক/বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের কোন শাখা হতে ভাতা উত্তোলনে আগ্রহী।
২। আমার শারীরিক অক্ষমতাজনিত কারণে অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ভাতা গ্রহনের জন্য স্বশরীরে উপস্থিত হওয়া সম্ভব নয়। তাই আমার অসহায় মুক্তিযোদ্ধা  ভাতা গ্রহনের জন্য নিম্নবর্ণিত ব্যক্তিকে মনোনয়ন দান করিলাম।
নাম ও ঠিকানা সম্পর্কে মনোনীত ব্যক্তির নমুনা স্বাক্ষর বিধবা/স্বামী পরিত্যাক্ত দুঃস্থ মহিলা ভাতাভোগীর প্রতিস্বাক্ষর/টিপসহি

                                                                                                        আপনার বিশ্বস্ত
তারিখ :                        আবেদনকারীর স্বাক্ষর :
                                 আবেদনকারীর নাম :
                                 নমুনা স্বাক্ষর/টিপসহি :  


Share with :

Facebook Twitter